মে 26, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

আবারও পুজো নিয়ে নতুন করে জনস্বার্থ মামলা হাইকোর্টে!


নিজস্ব সংবাদদাতা : দুর্গাপুজো শেষ । কিন্তু উৎসবের মরশুম এখনো বাকি। বাকি রয়েছে কালিপুজো, জগদ্ধাত্রী পুজো, ছটপুজো, রাসপূর্ণিমা আর কার্তিকপুজো। এবার এই সব পুজোতেও মণ্ডপে মণ্ডপে দর্শক আগমন ঠেকাতে আবারও নতুন করে জনস্বার্থ মামলা দায়ের হল কলকাতা হাইকোর্টে। এবারের মামলাটিও দায়ের করেছেন অজয় কুমার দে, যিনি দুর্গাপুজো নিয়ে হাইকোর্টে মামলা দায়ের করেছিলেন। অজয়বাবুর দায়ের করা মামলা প্রসঙ্গে তাঁর আইনজীবি সব্যসাচী চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, ‘আদালতের রায় ও পুজো উদ্যোক্তাদের সদিচ্ছার ফলে দুর্গাপুজোয় ভিড় অনেকটাই নিয়ন্ত্রণ করা গিয়েছে। কিন্তু তারপরও সংক্রমণ প্রতিদিন বাড়ছে। কাঙ্ক্ষিত লক্ষ্যে এখনও আমরা পৌঁছাতে পারিনি। তাই বাকি থাকা কালিপুজো, ছটপুজো, জগদ্ধাত্রী পুজো, কার্তিক পুজো, রাসপূর্ণিমার মতো উত্সবগুলি যাতে কোনওরকম ভিড় ছাড়াই কাটানো যায় সেই আর্জি জানানো হয়েছে আদালতের কাছে। যদিও ইতিমধ্যেই কৃষ্ণনগর ও চন্দননগরে জগদ্ধাত্রী পুজোর বিধি বেঁধে দিল প্রশাসন। এবার স্থানীয় রীতি মেনে ঘট বিসর্জন করা যাবে না। দুপুর ২টো থেকে রাত ৯টার মধ্যে শোভাযাত্রা সাঙ্গ করতে হবে।খোলামেলা মণ্ডপ করতে হবে। রাখতে হবে মাস্ক ও স্যানিটাইজার। স্বেচ্ছাসেবক রাখতে হবে পুজো উদ্যোক্তাদের। মণ্ডপে অঞ্জলি বন্ধ রাখাই ভালো। ভার্চুয়াল অঞ্জলি করলেই ভালো।প্রশাসনিক বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়েছে, মণ্ডপে ২৫ জনের বেশি ঢুকতে পারবেন না, মানসিক দেওয়ার ব্যাপার থাকলে আলাদা বন্দোবস্ত রাখতে হবে। সর্ব্বোচ্চ ১০জন ঢাকি থাকবেন। ঘট ভাসান এবারে হবে না। কাঁধে করে প্রতিমা নিয়ে যাওয়ায় কোনও সমস্যা নেই। তবে গাড়ির ব্যবস্থা করলেই ভালো। প্রতিমা নিরঞ্জনে যেতে পারবেন পুজো কমিটির লোকেরা। ঘাটে সর্বোচ্চ ১০ জন যেতে পারবেন। শোভাযাত্রা একমুখী হবে। চন্দননগরেও মণ্ডপের ১০মিটার আগে ব্যারিকেড করে দেওয়া হবে দর্শকদের।

Share this News
error: Content is protected !!