মে 26, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

করোনার নতুন স্ট্রেন চিন্তা বাড়াচ্ছে গবেষকদের


নিজস্ব সংবাদদাতা : করোনাভাইরাসের নতুন এক স্ট্রেনের জেরে হুড়মুড়িয়ে সংক্রমণ বাড়ছে ব্রিটেনে। গত কয়েক দিনে পরিস্থিতি এতটাই বিপন্ন যে ইংল্যান্ডে কোনও বিমান আসা বা ইংল্যান্ড থেকে যাওয়া- দুইই ফের নিষিদ্ধ হয়েছে এই ঊর্ধ্বমুখী সংক্রমণের জেরে। ব্রিটেনের স্বাস্থ্যসচিব ম্যাট হ্যানক বলেন, ‘চূড়ান্ত কঠিন অবস্থায় পৌঁছেছে এ দেশের করোনা পরিস্থিতি। করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেনের কারণে বাড়ছে সংক্রমণ।’ এদিকে ভারতে করোনার সংক্রমণ একটু একটু করে কমলেও এখনও আশঙ্কা দূর হয়নি। টিকা আনার জোরদার প্রস্তুতি চালাচ্ছে বিভিন্ন টিকা প্রস্তুতকারী সংস্থাগুলো। তাতে কিছুটা হলেও আশা জেগেছে মানুষের মধ্যে। কিন্তু ব্রিটেনে করোনার নতুন প্রজাতি ধরা পড়ায় উদ্বেগ যেন এক ধাক্কায় হঠাত্ বেড়ে গিয়েছে। দাবি করা হচ্ছে, এই নতুন প্রজাতি আগের তুলনায় ৭০ শতাংশ বেশি সংক্রামক। নতুন এই প্রজাতির কোড নাম বি.১.১.৭। ইতিমধ্যেই দিল্লি সরকার জানিয়েছে, প্রত্যেক ঘরে ঘুরে দেখা হবে কোন কোন ব্যক্তি গত দু’সপ্তাহের মধ্যে ব্রিটেন থেকে ফিরেছেন। খোঁজ পেলে সেই সব ব্যক্তিদের নমুনা পরীক্ষা করে দেখা হবে তাঁদের দেহে করোনার নতুন স্ট্রেন আছে কিনা।করোনার নতুন স্ট্রেনের খবর প্রকাশ্যে আসতেই ইউরোপ এবং পশ্চিম এশিয়ার দেশগুলো থেকে আসা যাত্রীদের জন্য কোয়রান্টিনের জন্য নতুন নিয়ম জারি করেছে মহারাষ্ট্র। নতুন নিয়ম অনুযায়ী ওই দেশগুলো থেকে আসা যাত্রীদের ১৪ দিন কোনও কোয়রান্টিন কেন্দ্রে থাকতে হবে। গত কয়েক সপ্তাহের মধ্যে ব্রিটেন থেকে ফেরা যাত্রীদের তালিকা তৈরি করতে শুরু করেছে তেলঙ্গানা এবং কর্নাটক।ব্রিটেনে করোনাভাইরাসের নতুন স্ট্রেন ছড়িয়ে পড়ার পরে প্রথমে নাইট কার্ফু জারি করেছিল মহারাষ্ট্র। এবার কর্নাটকও হাঁটল সেই পথে। বুধবার জানানো হয়েছে, আগামী ২ জানুয়ারি পর্যন্ত কর্নাটকের প্রতিটি শহরে রাত ১০ টা থেকে সকাল ছ’টা পর্যন্ত কার্ফু জারি থাকবে। মহারাষ্ট্রে অবশ্য নাইট কার্ফুর মেয়াদ ৫ জানুয়ারি পর্যন্ত।

Share this News
error: Content is protected !!