মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

করোনার মাঝেই বার্ড ফ্লু আতঙ্ক রাজস্থানে

নিজস্ব সংবাদদাতা : একে রামে রক্ষে নেই, সুগ্ৰীব দোসর। করোনা পরিস্থিতিতে ছড়াতে শুরু করল বার্ড ফ্লু। এই বার্ড ফ্লু রোগে আক্রান্ত হয়ে রাজস্থানে মারা গিয়েছে অসংখ্য কাক এবং ময়ূর।এর ফলে ইতিমধ্যেই রাজস্থানের বন দপ্তর সে রাজ্যে জারি করেছে বার্ড ফ্লু অ্যালার্ট। রাজ্যের পশুপালন দপ্তর সূত্রে খবর, ঝালাওয়ার, বারান, কোটা, পালি, যোধপুর এবং জয়পুর মিলিয়ে এখনও পর্যন্ত ২৫২টি কাকের দেহ উদ্ধার হয়েছে। দপ্তরের সচিব কুঞ্জিলাল মিনা বলেন, বার্ড ফ্লুয়ের কারণেই কাকের মৃত্যু হচ্ছে রাজ্যে। বেশি ঘটছে কোটা এবং যোধপুর ডিভিশনে। ভাইরাসটি সত্যিই মারাত্মক। নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। ফিল্ড অফিসার এবং পোল্ট্রি মালিকদের সচেতন থাকতে বলা হয়েছে। সম্ভার লেক এবং কৈলা দেবী পক্ষী অভয়ারণ্যে নজরদারি বাড়ানো হয়েছে। এই বার্ড ফ্লু মানুষের শরীরে সংক্রমিত হতে পারে কি না, তা নিয়ে ইতিমধ্যেই জল্পনা শুরু হয়েছে। রীতিমতো আতঙ্কে রয়েছেন সাধারণ মানুষ। রাজ্যের যেখানে যেখানে পাখির মৃত্যুর খবর পাওয়া গেছে, সেখানে যাতে দ্রুত পরীক্ষার ব্যবস্থা করা হয়, তার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে। অন্যদিকে হিমাচল প্রদেশে শয়ে শয়ে পরিযায়ী পাখির রহস্যমৃত্যু ঘিরে চাঞ্চল্যের সৃষ্টি হয়েছে। গত এক সপ্তাহ ধরে হিমাচল প্রদেশের পং বাঁধ সংলগ্ন জলাভূমিতে ১২০০ পরিযায়ী পাখির মৃত্যু হয়েছে। এই মৃত পাখিদের মধ্যে অনেক বিপন্ন প্রজাতির পাখিও রয়েছে। তবে এতো সংখ্যক পাখির মৃত্যুর কারণ এখন স্পষ্ট নয়। তাই স্বাভাবিকভাবেই উদ্বেগ বাড়ছে ক্রমশ। ইতিমধ্যেই বেশ কিছু পাখির দেহ জলন্ধরের ‘ইন্ডিয়ান ভেটেরিনারি রিসার্চ ইনস্টিটিউট’ ও ‘রিজিওনাল ডিজিজ ডায়াগনস্টিক ল্যাবরেটরিতে পাঠানো হয়েছে ময়নাতদন্তের জন্য। সেখান থেকে পাওয়া প্রাথমিক রিপোর্ট যা এসেছে, তা থেকে এটা স্পষ্ট যে, কোনও ধরনের বিষক্রিয়ার জন্য ওই পাখিগুলির মৃত্যু হয়নি। এদিকে মৃত পাখিদের দ্রুত পুড়িয়ে ফেলা হচ্ছে। যাতে পাখিদের মধ্যে কোনও সংক্রমণ দেখা দিলে, তা অন্য পাখিদের মধ্যে ছড়িয়ে পড়া থেকে আটকানো যায়।

Share this News
error: Content is protected !!