মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

কানপুরের মেডিক্যাল কলেজে পৌঁছাবে রাশিয়ার স্পুটনিক- ভি


নিজস্ব সংবাদদাতা : ভারতে রাশিয়ার তৈরি ভ্যাকসিনের দ্বিতীয় ও তৃতীয় দফার ট্রায়ালের কাজ করা হবে। ট্রায়ালের কেন্দ্র হিসেবে কানপুরের গণেশ শঙ্কর বিদ্যার্থী মেডিক্যাল কলেজকে বেছে নেওয়া হয়েছে। আগামী সপ্তাহেই সেখানে ভ্যাকসিন পৌঁছে যাবে বলে জানা গিয়েছে। ডিজিআই অনুমোদন দেওয়ার পরেই এই পদক্ষেপ করেছে রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড ও ডাঃ রেড্ডিজ ল্যাব। রয়টার্স সূত্রে খবর, এই ভ্যাক্সিনের প্রথম ও দ্বিতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগটি এতই কম মানুষের মধ্যে হয়েছে যে সেটির ওপরে ভরসা করা যায় না। তাই এর আগে ডিজিআই (ড্রাগ কন্ট্রোল জেনারেল অফ ইন্ডিয়া) অনুমোদন দিতে আপত্তি জানিয়েছিল। ১৩ অক্টোবর ডাঃ রেড্ডিজ ল্যাব ডিজিআইয়ের কাছে ফের আবেদন জানায়। স্পুটনিক ভি-এর দ্বিতীয় ও তৃতীয় পর্যায়ের পরীক্ষামূলক প্রয়োগ করার ইচ্ছেপ্রকাশ করে। এরপরেই অনুমোদন পায় হায়দরাবাদের এই সংস্থা। সারা বিশ্বের মধ্যে রাশিয়াই প্রথম করোনা ভাইরাসের বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ভ্যাকসিন তৈরির দাবি করেছিল। সেদেশের প্রেসিডেন্ট ভ্লাদিমির পুতিন এই ভ্যাকসিনের কথা ঘোষণা করেছিলেন। তিনি আরও দাবি করেছিলেন, তাঁর নিজের মেয়েও সেই ভ্যাকসিন নিয়েছে। স্থির হয়েছে, দেড় হাজার স্বেচ্ছাসেবকের শরীরে এই ভ্যাক্সিন প্রয়োগ করা হবে। চুক্তি অনুযায়ী, রাশিয়ার প্রথম ভ্যাক্সিন স্পুটনিক- ভি পরীক্ষায় পাশ করলে ডাঃ রেড্ডিজ ল্যাব সারা দেশে ভ্যাক্সিন বিতরণ করবে। ডাঃ রেড্ডিজ ল্যাবকে ১০০ মিলিয়ন ডোজ দেবে রাশিয়ান ডিরেক্ট ইনভেস্টমেন্ট ফান্ড।ভারতে বেশ কয়েকটি সংস্থা ভ্যাকসিন তৈরির কাজে হাত লাগিয়েছে। এর মধ্যে সিরাম ইনস্টিটিউটের তৈরি ভ্যাকসিন রয়েছে সবার আগে। এই সংস্থা জানিয়েছে, ডিসেম্বরে, তাদের কাছে ১০ কোটি ডোজ রেডি হয়ে যাবে।

Share this News
error: Content is protected !!