মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

কৃষকদের সমর্থনে ২৪ ঘণ্টার অনশনে বসবেন আন্না হাজারে


নিজস্ব সংবাদদাতা : এবার আন্দোলনকারীরা পাশে পেয়ে গেলেন আন্না হাজারেকেও। কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবি জানালেন তিনিও। দ্ব্যর্থহীন ভাবে জানিয়ে দিলেন, এই শান্তিপূর্ণ প্রতিবাদকে সমর্থন করেন তিনি। আন্না হাজারে বর্তমানে যদিও দিল্লিতে নেই। তিনি রয়েছেন মহারাষ্ট্রের আহমেদনগর জদেলার রালেগাঁ সিদ্ধিতে। সেখান থেকেই তিনি জানান, তিনি চান আন্দোলন শান্তিপূর্ণ থাকুক। তিনি আরও জানান কৃষকদের সমর্থনে ২৪ ঘণ্টা অনশনে বসবেন তিনি। আন্নার কথায়, এটাই পথে নেমে আন্দোলন করার যথার্থ সময়। কৃষকদের সমস্যার সমাধান হওয়া জরুরি। নতুন তিনটি কৃষি আইন বাতিলের দাবীতে টানা ১৪ দিন ধরে দেশে কৃষক আন্দোলন চলছে। মঙ্গলবার কৃষকদের ডাকা ভারত বনধে অভূতপূর্ব সাড়া মিলেছে দেশজুড়ে। এরপর আগামীকাল তিন কৃষি আইন বাতিলের দাবীতে রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দের সঙ্গে দেখা করবেন বিরোধী রাজনৈতিক দলের প্রতিনিধিবৃন্দ। রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাত্কার প্রসঙ্গে সিপিআই(এম) সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি জানিয়েছেন – রাষ্ট্রপতির সঙ্গে সাক্ষাতের আগে সমস্ত বিরোধীদল নিজেদের মধ্যে এক বৈঠকে মিলিত হবেন। আগামী কর্মসূচি কী হবে তা নিয়ে ওই বৈঠকে আলোচনা হবে। কোভিড পরিস্থিতির জন্য পাঁচ জনের বেশি প্রতিনিধি রাষ্ট্রপতির সঙ্গে দেখা করতে পারবেন না। যদিও আমরা চেষ্টা করছি আরও বেশি সংখ্যক বিরোধী নেতৃত্বকে সঙ্গে নেবার।পাঁচ সদস্যের এই প্রতিনিধিদলে থাকবেন সিপিআই(এম) সাধারণ সম্পাদক সীতারাম ইয়েচুরি, কংগ্রেস সাংসদ রাহুল গান্ধি , এনসিপি প্রধান শারদ পাওয়ার, সিপিআই সাধারণ সম্পাদক ডি রাজা এবং ডিএমকে-র এক প্রতিনিধি। এদিকে হাল ছাড়ার পাত্র নয় সরকারও। দেশের কৃষকরা ইংরেজিতে লেখা আইনের ভাল দিকগুলি হয়তো বুঝতে পারছেন না। এমনটাই আন্দাজ করেছিল কৃষি মন্ত্রক। তার উপর সরকারের দাবি ছিল, কৃষকদের নতুন কৃষি আইন সম্পর্কে ভুলভাল বোঝাচ্ছে বিরোধী শিবির।তাই এবার হিন্দিতে কৃষি আইন বোঝানোর চেষ্টা শুরু করল কেন্দ্রীয় সরকার। এমনিতে কৃষক সংগঠনগুলি সরকারের কোনো যুক্তি শুনতেই রাজি নয়। তাদের একটাই দাবি, যেভাবেই হোক কৃষি আইন প্রত্যাখ্যান করতে হবে। তবে সরকারও নাছোড়বান্দা। সরকার নানা উপায়ে কৃষকদের নতুন কৃষি আইনের উপকারিতা বোঝানোর চেষ্টা করছে। কিন্তু কৃষকরা কোনও যুক্তিই মানছেন না।

Share this News
error: Content is protected !!