মে 21, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

‘ছোট করে শান্তিপূর্ণভাবে ছটপুজোর আয়োজন করুন’, পরামর্শ মমতার



আদালতের নির্দেশ মাথায় রেখে ছোট ছোট করে শান্তিপূর্ণভাবে ছটপুজোর আয়োজন করুন। বুধবার পোস্তায় জগদ্ধাত্রী পুজোর উদ্বোধনে এসে ব্রতপালনকারীদের উদ্দেশ্যে এই পরামর্শ দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

পুণ্যার্থীদের উদ্দেশ্যে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ছোট ছোট ১৩০০ পুকুর রয়েছে ছটপুজোর জন্য। সেখানে গিয়ে পুজো করুন। আদালত ঘরে বসে ছটপুজো করতে বলেছে। সম্ভব হলে ঘরেই করুন। সম্ভব না হলে পুকুরে বা গঙ্গায় যেখানেই যান ছোট ছোট দলে যান। একসঙ্গে অনেকে মিলে গাড়িতে যাবেন না। স্থানীয় পুলিশ যেভাবে বলছে সেই কথা শুনুন।”

হাই কোর্ট ছটপুজোয় কোনও শোভাযাত্রা বা বাজি ফাটানো যাবে না বলে রায় দিয়েছে। এছাড়া, সরকারের নজরদারিতে যে ঘাটগুলিতে ছটপুজোর আয়োজন করা হবে ছোটো গাড়িতে করে প্রতি পরিবারের ২ জন সেখানে যেতে পারবেন। তবে তাঁদের ক্ষেত্রেও মাস্ক-স্যানিটাইজার ব্যবহার আবশ্যিক। কোনওভাবে জমায়েত করা যাবে না। প্রয়োজনে রাজ্য ১৪৪ ধারা জারি করতে পারে বলেও জানিয়েছে আদালত।

আগামী ১৯ ও ২০ নভেম্বর, কলকাতায় ছটের ব্রত পালন করবেন পুন্যার্থীরা। এবছর পরিবেশ আদালতের নিষেধাজ্ঞা মেনে রবীন্দ্র সরোবরে পুজো করা যাবে না। সেই কারণেই গতবছরের চেয়ে এবছর বেশি সংখ্যায় জলাশয় ও ৪৪টি ঘাট তৈরি করছে। গঙ্গার ১৬টি ঘাটেও পুন্যার্থীদের ছটপুজো করার জন্য যাবতীয় ব্যবস্থা করছে পুরসভা। এমনকি বন্দরের ১০ নম্বর গেটও ব্রতপালনকারীদের জন্য খুলে দেওয়া হচ্ছে।

উল্লেখ্য, রবীন্দ্র সরোবরে ছটপুজো নিয়ে জাতীয় পরিবেশ আদালতের নিষেধাজ্ঞার বিরুদ্ধে স্থগিতাদেশ দেয়নি সুপ্রিম কোর্ট। শীর্ষ আদালতের নির্দেশের কথা শুনে কেএমডিএ চেয়ারম্যান পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন, “পুন্যার্থীদের ধর্মীয় ভাবাবেগের কথা ভেবেই রাজ্য আবেদন করেছিল। কিন্তু কোর্টের মেনেই কেএমডিএ ও রাজ্য সরকার সরোবরের বিকল্প জলাশয়ে ৪৪টি ঘাট ঘাট তৈরি করে পরিষেবা দেবে।”

Share this News
error: Content is protected !!