জানুয়ারী 29, 2023

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

জমজমাট করেই শুরু হল রাজ্য খাদি মেলা

রাহুল গুপ্ত ( প্রতিনিধি ) / শ্রীমন্ত সাহা , গোপাল মন্ডল ( চিত্রগ্রাহক )

শীতের ঠান্ডা গায়ে মেখেই বছরের শেষে শুরু হয়ে গেল রাজ্য খাদি মেলা – ২০২২-২৩. প্রতিবারের মত এইবারও বাংলার মানুষের জন্য পশ্চিমবঙ্গ রাজ্য খাদি দপ্তর খাদি মেলার আয়োজন করেছে। এদিন তালতলা-র মাঠ , সাউথ সিটি সংলগ্ন এই জায়গায় মেলার শুভ সূচনা হয়ে গেল।

একেবারে নক্ষত্র সমাবেশ মঞ্চে। রাজনৈতিক জগতের তারকা থেকে রুপোলী জগতের তারকারা থাকলেন এদিনের মঞ্চে।
মেলার শুভ উদ্বোধন করলেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য , অনুষ্ঠানের সভাপতিত্ব করলেন বিধায়ক এবং পশ্চিমবঙ্গ খাদি ও গ্রামীণ শিল্প পর্ষদের সভাপতি শ্রী কল্লোল খাঁ। প্রধান অতিথি হিসাবে মঞ্চে থাকলেন মন্ত্রী – মেয়র ফিরহাদ হাকিম , বিশেষ অতিথি হিসাবে থাকলেন মন্ত্রী শ্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় , শ্রী চন্দ্রনাথ সিংহ , তাজমুল হোসেন প্রমুখ। পাশাপাশি এদিন মঞ্চে উপস্থিত হন বিধায়ক , অভিনেত্রী জুন মালিয়া। এছাড়াও এদিন মঞ্চে থাকলেন রাসবিহারী কেন্দ্রের বিধায়ক ও কলকাতা পুরসভার মেয়র পারিষদ শ্রী দেবাশীষ কুমার , বিধায়ক এবং খাদি দপ্তরের সহ সভাপতি ডঃ মোশারফ হোসেন , এবং ঐ ওয়ার্ডের পৌর প্রতিনিধি শ্রীমতি মৌসুমি দাশ প্রমুখ।
থাকলেন খাদি দপ্তরের মুখ্য নির্বাহী আধিকারিক শ্রীমতি সুমিতা বাগচীও ।

খাদি মেলার আয়োজন হলে অর্থনীতি যে কতটা চাঙ্গা হয় , এদিন তা তুলে ধরেন রাজ্যের অর্থমন্ত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্য। খাদি বাংলার ঐতিহ্য , যাকে মুছে দেওয়া সম্ভব নয় , হাল ফ্যাশানের যুগেও খাদি ছিল এবং থাকবেও বললেন রাজ্যের কৃষি মন্ত্রী শোভনদেব চট্টোপাধ্যায় . চেয়ারম্যান হওয়ার পর থেকে তিনি চেষ্টা করেছেন কিভাবে খাদিকে আরও মানুষের কাছে পৌঁছে দেওয়া যায়। রাজ্যের বিভিন্ন জেলার পাশাপাশি রাজ্য খাদি মেলা কে আরও সমৃদ্ধ করাই তার কাছে চ্যালেঞ্জ বললেন পশ্চিমবঙ্গ খাদি ও গ্রামীণ শিল্প পর্ষদের সভাপতি শ্রী কল্লোল খাঁ

রাজ্যে তৃণমূল কংগ্রেস সরকারে আসার পর থেকে খাদির বিকাশ সম্ভব হয়েছে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নেতৃত্বে বললেন বিধায়ক দেবাশীষ কুমার।

পৌরপ্রতিনিধি হওয়ার পর এটি তাঁর দ্বিতীয়বার খাদি মেলার মঞ্চে আসা, বললেন পৌর প্রতিনিধি শ্রীমতি মৌসুমি দাশ , খাদিমেলায় আমন্ত্রণ পেয়ে গর্বিত বললেন খাদি মেলার মঞ্চে প্রথমবার আসা বিধায়ক , অভিনেত্রী জুন মালিয়া

প্রধান অতিথি হিসাবে মঞ্চে থেকে খাদি দপ্তরের কাজ এবং খাদি দপ্তরের আধিকারিক থেকে চেয়ারম্যান সবাইকে ধন্যবাদ দিলেন মন্ত্রী – মেয়র ফিরহাদ হাকিম। রাজ্যের বিভিন্ন জায়গায় মেলার আয়োজনের ফলে গ্রামীণ অর্থনীতি চাঙ্গা হচ্ছে বললেন মেয়র।

এইবারের মেলায় ভালো বিক্রি হবে বলে আশাবাদী খাদি দপ্তরের মুখ্য নির্বাহী আধিকারিক শ্রীমতি সুমিতা বাগচী।

সব অতিথিদের উপস্থিতিতে প্রদীপ প্রোজ্জ্বলন করে , জাতির জনককে শ্রদ্ধা নিবেদন করে খাদি মেলার শুভারম্ভ হয়ে গেল।

গোটা অনুষ্ঠানটির সঞ্চালনার দায়িত্বে থাকলেন খাদি দপ্তরের আধিকারিক বিশ্বজিৎ সরকার।

রাজ্যের বিভিন্ন জেলা থেকে বিক্রেতারা এসেছেন এইবারের খাদি মেলায় খাদির পসরা নিয়ে। প্রতি বছরের মত এইবারও অধীর আগ্রহে শহর , রাজ্য , দেশ এমনকি বিদেশ থেকেও প্রচুর ক্রেতারা আসতে শুরু করেছেন এই মেলায়। যাঁরা অপেক্ষা করে থাকেন এই মেলার জন্য।

খাদির পোশাক পরুন , খাদিকে বাঁচান। খাদি বাংলার ঐতিহ্য। এই বার্তা নিয়ে এইবারও হাজির রাজ্য খাদি দপ্তর। ৩০ ডিসেম্বর থেকে আগামী ১৬ জানুয়ারী পর্যন্ত , এই ১৮ দিন বাংলার মানুষের ডেস্টিনেশন যাদবপুর থানার কাছে তালতলা-র মাঠ. প্রতিদিন দুপুর ১ টা থেকে রাত ৯টা পর্যন্ত মেলা চলবে।

Follow us : Face Book , Youtube Address : dishashaktinews // Portal Address : www.dishashaktinews.com

Share this News
error: Content is protected !!