মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

ট্রাম্পের বিবাহ বিচ্ছেদ এখন সময়ের অপেক্ষা


নিজস্ব সংবাদদাতা : ডোনাল্ড ট্রাম্প ও মেলানিয়ার বিবাহ হয় ২০০৫ সালে। ২০০১ সাল থেকে মেলেনিয়া মার্কিন নাগরিক। গত পাঁচ বছরে বারবারই ট্রাম্প ও তদানীন্তন ফার্স্ট লেডির দাম্পত্য কলহ নিয়ে সংবাদ শিরোনাম হয়েছে। সম্প্রতি ফাঁস হওয়া একটি অডিওতে ফার্স্ট লেডি হিসেবে দায়িত্ব নিতে তাঁর অনীহার কথাও সামনে এসেছিল।আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যমে জোর গুঞ্জন, হোয়াইট হাউজ হাতছাড়া হতেই ট্রাম্পের সঙ্গে বিচ্ছেদ হতে চলেছে মেলানিয়া ট্রাম্পের।ট্রাম্প-মেলানিয়া দাম্পত্যে আসন্ন বিচ্ছেদের খবরটি প্রথম দিয়েছে ব্রিটিশ সংবাদপত্র দি ডেইলি মেল। ট্রাম্প প্রশাসনের প্রাক্তন সহযোগী স্টিফেনি ওলকফের দাবি, হোয়াইট হাউসে ট্রাম্প, মেলানিয়ার আলাদা বেডরুম, এমনকী দুজনের বিয়েটাও একটা ‘লেনদেন’ অর্থাত দেওয়া, নেওয়ার ব্যাপার। আরেক প্রাক্তন ট্রাম্প উপদেষ্টা ওমারোসা মানিগল্ট নিউম্যানের দাবি, ওঁদের বিয়েটা ভেঙেই গিয়েছে। ওমারোসা বলেছেন, মেলানিয়া দিন গুণছেন, ট্রাম্প সরকারি ভাবে ক্ষমতা ছাড়লেই তিনি তাঁকে ডিভোর্স দেবেন। তিনি আরও বলেছেন, স্বামী প্রেসিডেন্ট পদে থাকাকালেই যদি ডিভোর্স দিয়ে অসম্মানের বোঝা আরও বাড়ান, তবে ট্রাম্প তাঁকে কোনও উপায় বের করে শাস্তি দিতে পারেন, এই ভয়েই এখনও চরম পদক্ষেপ করেননি মেলানিয়া।প্রসঙ্গত মেলানিয়া ট্রাম্পের তৃতীয় স্ত্রী। তাঁর আগের দুই স্ত্রী মার্লা ও ইভানা ট্রাম্পের সঙ্গে বিয়ে ভেঙেছে।ট্রাম্পের সঙ্গে মেলানিয়ার সম্পর্কও উষ্ণ ছিল না। যদিও প্রকাশ্যে তা কখনোই স্বীকার করেননি মেলানিয়া। বলে এসেছেন, স্বামীর সঙ্গে দারুণ সম্পর্ক তাঁর, কখনও দুজনের বাকবিতন্ডা, ঝগড়া হয়নি। এখন দেখার বাইরের ঝড়ের পর অন্দরমহলের ঝড় কিভাবে সামলান আমেরিকার বিদায়ী প্রেসিডেন্ট।

Share this News
error: Content is protected !!