ফেব্রুয়ারী 2, 2023

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

‘নেতাইয়ে রাজনীতি করিনি’ : শুভেন্দু

নিজস্ব সংবাদদাতা : নন্দীগ্রামে শহিদদের শ্রদ্ধা জানাতে মাঝরাতে হাজির হয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার সকাল সকাল পৌঁছে গেলেন নেতাইয়েও। গ্রামে ঢুকেই শহিদ-স্মরণ নিয়ে রাজনীতির অভিযোগ তুললেন এই বিজেপি নেতা। তাঁকে বলতে শোনা গেল, “নেতাই নিয়ে আমি কখনও রাজনীতি করিনি। তবে এ বছর এসে দেখলাম পতাকায় মুড়ে ফেলা হয়েছে। এটা খুবই খারাপ হল। এর জবাব মানুষ দেবে।” একইসঙ্গে নাম না করে ছত্রধর মাহাতোকে নিয়েও তোপ দাগলেন শুভেন্দু। তাঁর বিস্ফোরক দাবি, ‘নেতাইয়ের জন্য শুধু সিপিএমই দায়ী ছিল না। জন সাধারণের কমিটির নামে গোটা এলাকায় বিশৃঙ্খলা তৈরি করা হয়েছিল। তার জন্যই এত লোক মারা গিয়েছে।’২০১১ সালের ৭ জানুয়ারি। লালগড়ের নেতাইয়ে গুলিতে নিহত হন ৯ জন গ্রামবাসী। এই ঘটনাকে সামনে রেখেই তৃণমূল ‘নেতাই দিবস’ পালন করে। এতদিন তৃণমূলের তরফে শুভেন্দুই যেতেন শহিদ-তর্পণে সামিল হতে। কিন্তু এ বছর ছবিটাই বদলে গিয়েছে। শুভেন্দু অধিকারী এখন বিজেপি নেতা। তাই নেতাই দিবসকে সামনে রেখে তৃণমূলও আলাদা কর্মসূচি নিয়েছে। সেখানে যাচ্ছেন পার্থ চট্টোপাধ্যায়, মদন মিত্ররা। এদিন তৃণমূলের প্রতিনিধিদের নেতাই-সফরকে তীব্র কটাক্ষ করে শুভেন্দু বলেন, “আমি এখানে ১১ বছর ধরে আসি। আর শহর থেকে লোকেরা আসে ভোটের আগে।”তবে নেতাই নিয়ে এদিন সবথেকে বিস্ফোরক দাবিটা শোনা গেল শুভেন্দুর মুখে। নাম না করে ছত্রধর মাহাতোকে আক্রমণ করলেন তিনি। নেতাইয়ে হত্যাকাণ্ডের জন্য শুধু সিপিএম নয়, ছত্রধরের জনসাধারণ কমিটিকেও কাঠগড়ায় তুললেন। এদিন শুভেন্দু বলেন, “আমি এখানে কোনওদিন রাজনীতি করিনি। এখানকার সঙ্গে আমার আত্মিক সম্পর্ক। এই সম্পর্ক যদি কেউ ছেঁড়ার চেষ্টা করে, কেউ যদি গত ১০ বছর জেলে কাটিয়ে এসে ভাবে এগুলি করবে তাহলে ভুল করবে।”

Report by Desk Reporter
Reported on – 07/01/2021

Share this News
error: Content is protected !!