মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

পশ্চিমবঙ্গে হামলার ছক আলকায়দার

নিজস্ব সংবাদদাতা : পশ্চিমবঙ্গে হামলার পরিকল্পনা করছে আন্তর্জাতিক জঙ্গি সংগঠন আল কায়দা। সংগঠনের ‘হিট লিস্টে’ রয়েছে রাজ্যের বেশ কয়েকজন রাজনীতিবিদের নাম। হামলার জন্য রাজ্যে মজুত ‘স্লিপার সেল’গুলিকে কাজে লাগাচ্ছে জঙ্গি সংগঠনটি। বাংলায় সংখ্যালঘু সম্প্রদায়ের যুবকদের মগজ ধোলাই করছে আল কায়দা। করাচি ও পেশোয়ারে রিক্রুটমেন্ট সেন্টার খুলে অনলাইনে বাংলা থেকে সদস্য সংগ্রহও চলছে। গত ৫ নভেম্বর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে একটি রিপোর্ট জমা দিয়েছে আইবি। তাতে বলা হয়েছে, বাংলা থেকে অল্পবয়সি ছেলেমেয়েদের দলে টানতে বিদেশি হ্যান্ডলারদের ব্যবহার করা হচ্ছে। অনলাইনে বাংলার অল্পবয়সি ছেলেমেয়েদের সঙ্গে যোগাযোগ স্থাপন করছে ওই হ্যান্ডলাররা। ওই সমস্ত ছেলেমেয়েকে মৌলবাদে দীক্ষিত করার প্রচেষ্টা চলছে। মগজধোলাই করে তাদের দলে যুক্ত করা হচ্ছে।এখনও পর্যন্ত সদস্য সংগ্রহ অভিযানে জড়িত ১১ সন্দেহভাজন আল কায়দা জঙ্গিকে গ্রেপ্তার করছে জাতীয় তদন্তকারী সংস্থা (NIA)। সম্প্রতি, পাক মদতপুষ্ট জঙ্গি সংগঠন লস্কর-ই-তইবার হয়ে জেহাদের বিষ ছড়ানোর অভিযোগে সৈয়দ এম ইদ্রিস নামের এক সন্দেহভাজন জঙ্গিকে কর্ণাটক থেকে গ্রেপ্তার করে এনআইএ। পশ্চিমবঙ্গে জেহাদি গতিবিধি সংক্রান্ত একটি মামলার তদন্তে বেরিয়ে আসে ধৃতের নাম। সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে লস্করের হয়ে বাংলা থেকে যুবকদের দলে ভরতি করার কাজ করছিল বলে অভিযোগ ইদ্রিসের বিরুদ্ধে। বাংলায় আল কায়দার শক্তিবৃদ্ধি নিয়ে আগেও বিভিন্ন সময় সতর্ক করেছেন কেন্দ্রীয় গোয়েন্দারা। দেড় বছর আগের একটি রিপোর্টে বলা হয়, বাংলায় আল কায়দার যে শাখা রয়েছে, অল্পবয়সি ছেলেমেয়েদের কাশ্মীরের জিহাদে যোগ দিতে উত্সাহ জোগাচ্ছে তারা। বাংলাভাষীদের জন্য এর শাখা হিসেবে আবার কাজ করে বাংলাদেশের জঙ্গি সংগঠন জামাতুল মুজাহিদিন (জেএমবি)। পিছিয়ে নেই লস্কর রাও। এবার ‘ভারচুয়াল যুদ্ধে নামছে লস্কর-ই-তইবা । এখন সাইবার নাশকতার দিকে বেশি নজর পাকিস্তানের এই জঙ্গি সংগঠনের । সেই কারণেই পাকিস্তানে বসেই ‘ভারচুয়াল’ পদ্ধতিতে সদস্য নিয়োগ করছে লস্কর। সরাসরি নাশকতা ছাড়াও সাইবার নাশকতা করে একের পর এক সরকারি ওয়েবসাইট হ্যাক করার ছক কষছে এই জঙ্গি সংগঠন। এমনকী, ব্যাংকের সাইট হ্যাক করার ছকও রয়েছে তাদের। তার জন্য লস্কর সাহায্য নিচ্ছে পাক গুপ্তচর সংস্থা আইএসআইয়ের। এমনকী, পিছনে চিনের মদত রয়েছে, এমন সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিচ্ছেন না গোয়েন্দারা।

Share this News
error: Content is protected !!