মে 26, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

পুজোর অনুদান মামলা : পর্যবেক্ষণ আদালতের

গতবছর ক্লাবগুলিকে ২৫ হাজার টাকা করে পুজোর অনুদান দিয়েছিল রাজ্য সরকার। এবছর তা বাড়িয়ে দ্বিগুণ অর্থাৎ ৫০ হাজার টাকা করার ঘোষণা করেছিলেন মমতা বন্দ্যোপাধ্য়ায়। বলেছিলেন, এ বার পরিস্থিতি খারাপ। তাই পুজো কমিটিগুলিকে ৫০ হাজার টাকা করে ভালবাসার উপহার দেওয়া হবে।

সেই সিদ্ধান্তের বিরুদ্ধে কলকাতা হাইকোর্টে দায়ের হয়েছে মামলা। অনুদান দেওয়ার কারণ হিসেবে মুখ্যমন্ত্রী যে ব্যাখ্যা দিয়েছেন, তা নিয়ে শুক্রবার প্রশ্ন তুলেছে উচ্চ আদালত। বিচারপতিদের পর্যবেক্ষণ, ‘মুখ্যমন্ত্রী টাকা দেওয়ার সময় যা বলেছেন, পরে বিজ্ঞপ্তির সঙ্গে তা মিলছে না।’

আদালতের এই পর্যবেক্ষণকে হাতিয়ার করেই ময়দানে নেমে পড়েছে বিরোধীরা। সিপিএম কেন্দ্রীয় কমিটির সদস্য সুজন চক্রবর্তী বলেন, মুখ্যমন্ত্রী আদালতে মিথ্যা প্রমাণিত হলেন।

পুজো কমিটিগুলিকে অনুদান সংক্রান্ত মামলায়, বৃহস্পতিবারই আদালতের বেশকিছু প্রশ্নের মুখে পড়েছিল রাজ্য সরকার। রাজ্য সরকারের উদ্দেশে ডিভিশন বেঞ্চ প্রশ্ন করে, অনুদান কি শুধু দুর্গাপুজোতেই দেয় সরকার? না কি অন্য উৎসবেও দেওয়া হয়? ঈদেও কি তা দেওয়া হয়েছিল? যেভাবে ইচ্ছে টাকা দেওয়া যায় কি? গণতান্ত্রিক ব্যবস্থায় কি এই ভেদাভেদ করা যায়? এটা কি রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রণোদিত নয়?

জবাবে অ্যাডভোকেট জেনারেল কিশোর দত্ত জানিয়েছিলেন, ৯৫ শতাংশ ক্লাবকে ইতিমধ্যেই অনুদান দেওয়া হয়েছে। উপযুক্ত নিয়ম মেনেই অনুদান দেওয়া হচ্ছে।

শুক্রবার হাইকোর্টের প্রশ্নের মুখে পড়েছে রাজনৈতিক দলগুলির ভূমিকাও। আদালতের পর্যবেক্ষণ, দল নির্বিশেষে প্রত্যেকে আমলাতন্ত্রের মেরুদণ্ড ভেঙেছে। বেঞ্চ জানিয়েছে, ‘আমলাতন্ত্র মজবুত হলে এই অবস্থা হয় না। ‘বিচার-বুদ্ধিতে আমলারা আপনাদের (রাজনৈতিক নেতাদের) থেকে এগিয়ে’।

Report by
Reported on – 17-October-2020

Share this News
error: Content is protected !!