মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

ফারুখের নেতৃত্বেই জম্মু-কাশ্মীরে লড়বে বিরোধীরা

নিজস্ব সংবাদদাতা : জম্মু-কাশ্মীরে বিজেপির বিরুদ্ধে লড়াইয়ে নেতৃত্ব দেবেন জম্মু-কাশ্মীরের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী ফারুখ আবদুল্লাহ। বৈঠকে ন্যাশনাল কনফারেন্সের প্রধান ফারুক অবদুল্লাকে মহাজোট বা গুপকার ডিক্লেরেশনের প্রেসিডেন্ট হিসেবে মনোনীত করা হয়। পিডিপি নেত্রী মেহবুবা মুফতিকে দেওয়া হয়েছে ভাইস-প্রেসিডেন্ট পদ। সংগঠনটির মুখপাত্র করা হয়েছে সাজ্জাদ লোনকে। আহ্বায়ক করা হয়েছে সিপিএম নেতা মহম্মদ ইউসুফ তারিগামিকে। এমনকি নিজেদের দলের প্রতীক হিসেবে জম্মু-কাশ্মীর রাজ্যের পুরনো পতাকা ব্যবহার করা হবে বলে জানানো হয়েছে এই নতুন দলের তরফে। বৈঠকের পরে সংবাদমাধ্যমের সামনে ফারুখ আবদুল্লাহ বলেন, ‘আমি সবাইকে বলতে চাই বিজেপি যে পিএজিডিকে দেশবিরোধী বলছে তা সম্পূর্ণ মিথ্যে। অবশ্য এখন দেশে বিজেপি বিরোধিতা করা মানেই দেশ বিরোধিতা করা। তারা দেশের সংবিধানকে ভাঙার চেষ্টা করেছে। তারা এই দেশকে ভাগ করার চেষ্টা করেছে। গত বছর ৫ অগস্ট দেশের গণতান্ত্রিক ব্যবস্থাকে ভাঙার চেষ্টা করেছে তারা, এটা সবাই দেখেছে।’ ফারুখ বলেছেন, ‘ আমরা জম্মু-কাশ্মীর ও লাদাখের মানুষের অধিকার ফিরিয়ে আনতে চাই। এটা কোনও ধর্মীয় লড়াই নয়। ধর্মের নামে বিভেদ সৃষ্টি করার এই চেষ্টা বিফল হবে।’ পিডিপি নেত্রীর মুক্তির পরেই উপত্যকার রাজনীতি নাটকীয় মোড় নেয়। অতীতের শত্রুতা ভুলে এক ছাতার তলায় জড়ো হন ন্যাশনাল কনফারেন্স, পিডিপি, কংগ্রেস, সিপিআইএম, পিপলস কনফারেন্স বিরোধী দলের নেতারা। ৩৭০ ধারা, কাশ্মীরের নিজস্ব পতাকা ফিরিয়ে দেওয়ার জন্য আন্দোলন শুরু করার জন্য পিপলস অ্যালায়েন্স ফর গুপকার ডিক্লারেশন নামে নয়া জোট গড়ে তোলা হয়। যদিও ওই জোটের নেতৃত্ব কে দেবেন তা নিয়ে কোনও সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়নি ওই বৈঠকে। এদিন জোটের নেতা বেছে নিতে ফের বৈঠকে বসেছিলেন জোটের নেতারা। ওই বৈঠকে রাজ্যের প্রাক্তন মুখ্যমন্ত্রী তথা প্রবীণ নেতা ফারুখ আবদুল্লাকেই নেতা হিসেবে বেছে নেওয়া হয়।

Share this News
error: Content is protected !!