মে 26, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

বিজেপিতে স্বাগত জানালেন মুকুল!



নিজস্ব সংবাদদাতা : শুভেন্দু অধিকারীর বিজেপিতে যোগ দেওয়ার সম্ভাবনার কথা অনেক আগে থেকেই শোনা যাচ্ছিল। মাঝে জল্পনা ছড়িয়েছিল কংগ্রেসে যোগদান করার বিষয়টিও। অনেকে আবার নতুন দল তৈরির সম্ভাবনাও উড়িয়ে দিতে চান না। আপাতত এসব দিকেই নজর থাকছে সকলের। তবে মুকুল রায় নতুন করে শুভেন্দু অধিকারীকে বিজেপিতে স্বাগত জানানোয় পদ্মশিবিরের পথেই পা বাড়াতে পারেন মেদিনীপুরের জননেতা, মনে করছেন রাজনৈতিক মহলের একাংশ। ইতিমধ্যেই, তৃণমূলে তাঁর ভূমিকাকে সমর্থন করে বিজেপিতে যোগ দিয়েছেন কোচবিহারের বিধায়ক মিহির গোস্বামী। পা বাড়িয়েই আছেন বারাকপুরের বিধায়ক শীলভদ্র দত্ত। আর শুভেন্দু সিদ্ধান্ত নিলে যাবেন আরও অনেকেই। ২০১৭ সালে মুকুল রায় যখন তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেন, তখনও তৃণমূলের বিরুদ্ধে এত গেল গেল রব ওঠেনি।তখনও লোকসভা নির্বাচনে এ রাজ্যে ১৮ টি আসন পায়নি গেরুয়া শিবির। সেই সময় মুকুল রায়ের বিজেপিতে যাওয়ার পর প্রধান টার্গেটই ছিল তৃণমূল ভেঙে নেতাদের বিজেপিতে আনা। মুকুল রায় অবশ্যই অনেকটা ধাক্কা দিয়েছেন তৃণমূল কংগ্রেসে। বিষ্ণুপুরের সাংসদ সৌমিত্র খান, ভাটপাড়ার বিধায়ক অর্জুন সিং, বোলপুরের সাংসদ অনুপম হাজরা, রাজারহাট-নিউটাউনের বিধায়ক সব্যসাচী দত্ত, নিজের ছেলে বিজপুরের বিধায়ক শুভ্রাংশু রায় সহ অনেককেই ঘাসফুল শিবির থেকে নিয়ে এসেছেন গেরুয়া শিবিরে। তবে, শুভেন্দু বিজেপিতে যোগ দিলে তিনি তৃণমূল ভাঙাতে মুকুল রায়কেও টেক্কা দেবেন বলে মনে করছে বাংলার রাজনৈতিক মহল। তৃণমূল শীর্ষ নেতৃত্বও এখন শুভেন্দু চ্যাপটার ক্লোজড করতে চাইছে। সম্ভবত আগামী ৭ তারিখ মেদিনীপুরে তৃণমূলনেত্রীর দলীয় সভার আগে পরে করেই সেই সিদ্ধান্তের কথা জানিয়ে দেওয়া হবে। সেই সঙ্গে শুভেন্দুর সঙ্গে ঠিক কতজন বিধায়ক, সাংসদ, নেতা ও দলীয় কর্মীরা যাবেন তার একটা হিসাব কষা শুরু হয়ে গিয়েছে শাসক শিবিরের অন্দরে।

Share this News
error: Content is protected !!