মে 26, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

বেতন না পেয়ে অভিনব প্রতিবাদ


নিজস্ব সংবাদদাতা : বেতনের দাবিতে অভিনব কায়দায় প্রতিবাদ জানালেন হুগলি নদী জলপথ পরিবহণ সমবায় সমিতির কর্মীরা। রীতিমতো থালা-বাটি হাতে রাস্তায় রাস্তায় ‘ভিক্ষা’ করতে দেখা গেল হাওড়ায়। পোশাক দেখে মনে হবে না এরা ভিক্ষুক, তবে মানসিক যা অবস্থা তাতে ভিক্ষা করা ছাড়া আর কোন উপায় নেই থালা হাতে বললেন এক মহিলা ফেরী কর্মী। হাতে প্লাকার্ডে লেখা ‘ মাইনে নাই, বোনাস নাই, তাইতো আমরা ভিক্ষা চাইছি ।’ লকডাউনের পর থেকেই বেতন অনিয়মিত হয়ে পড়েছে হগলি নদী জলপথ পরিবহণের কর্মীদের। বেশ কিছু দিন ধরে দাবিদাওয়া জানানোর পর পুজোর আগে এক মাসের বেতন পেয়েছেন। কিন্তু এখনও পুজোর বোনাস ও দু’মাসের বেতন বকেয়া রয়েছে তাঁদের। কর্মচারীদের বেতন সমস্যা মেটাতে রাজ্য সরকারের অর্থ দফতর থেকে সমবায় দফতরকে প্রায় ২ কোটি টাকা অনুদানও দেওয়া হয়। কিন্তু সমবায় দফতরের অধীনে থাকা হুগলি নদী জলপথ পরিবহন কর্তৃপক্ষ সেই টাকা কর্মচারীদের দেননি বলে অভিযোগ। বেতন সমস্যায় সংস্থার প্রায় ৩৫০ কর্মী। মন্ত্রী অরূপ রায় অবশ্য শীঘ্রই বেতন মেটানোর আশ্বাস দিয়েছেন। তিনি বলেন, ”রাজ্য সরকার আর্থিক সাহায্য ইতিমধ্যেই করেছে। জলপথ পরিবহনের প্রশাসককে দায়িত্ব দেওয়া আছে। তিনি সমস্ত কিছু দেখে শীঘ্রই সব মিটিয়ে দেবেন। ইতিমধ্যেই বেশ কিছুটা বেতন দেওয়া হয়ে গিয়েছে। বকেয়া বেতনও খুব শীঘ্রই পেয়ে যাবেন জলপথ পরিবহণের কর্মীরা।” লকডাউনের কারণে দীর্ঘদিন বন্ধ ছিল ফেরি চলাচল। এর পর তা চালু হলেও লোকাল ট্রেন বন্ধ থাকায় পর্যাপ্ত যাত্রী হচ্ছে না। নবান্ন সূত্রে খবর, যাত্রী না হওয়ায় প্রতি দিন কয়েক লক্ষ টাকা ক্ষতির মুখ দেখছে হুগলি নদী জলপথ পরিবহণ নিগম। সে কারণেই বেতনে জটিলতা। যদিও এই নিয়ে জলপথ পরিবহণের কোনও আধিকারিক এই বিষয়ে মুখ খুলতে চাননি।

Share this News
error: Content is protected !!