মে 26, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

‘ভিন গ্রহের প্রাণীদের সঙ্গে গোপনে সম্পর্ক রাখেন ট্রাম্প’ ?

নিজস্ব সংবাদদাতা : ইসরায়েলের প্রাক্তন স্পেস চিফ এক চমকপ্রদ মন্তব্য করেছেন। তিনি বলেছেন, ভিন গ্রহের প্রাণীর অস্তিত্ব আছে এবং তাদের খোঁজ জানেন প্রাক্তন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। প্রায় ৩০ বছর ইসরায়েলের স্পেস সিকিউরিটি প্রোগ্রামের নেতৃত্বদানকারী হাইম এশেদ আরও বলেন, যে ভিন গ্রহের প্রাণীর সঙ্গে গোপনে আমেরিকা ও ইসরায়েলের সংযোগ আছে। তারা তাদের অস্তিত্বকে সামনে আনতে চায় না বলেও জানিয়েছেন ওই বিজ্ঞানী। হাইমের দাবি, আমেরিকার সরকারের সঙ্গে রীতিমতো চুক্তি হয়েছে ভিনগ্রহীদের। তাঁরা মহাবিশ্বের গঠন সম্পর্কে গবেষণা করতে চায়। সেজন্য শুক্র গ্রহে তারা ঘাঁটি বানিয়ে ফেলেছে। আমেরিকা তাদের নানাভাবে সাহায্য করছে। ভিনগ্রহীরাই ট্রাম্পকে বলেছে, তিনি যেন তাদের অস্তিত্বের কথা গোপন রাখেন। তারা চায়, মানুষ জ্ঞানবিজ্ঞানে আরও উন্নতি করুক, তাদের সমকক্ষ হোক। তারপরেই সবাইকে তাদের কথা জানানো হবে। ইসরায়েল জানিয়েছে , ভিন গ্রহের প্রাণীদের নিজস্ব একটি সংস্থা রয়েছে। সেই সংস্থার নাম গ্যালাকটিক ফেডারেশন। এই সংস্থা ব্রক্ষ্ণাণ্ডর বিভিন্ন জটিল বিষয় নিয়ে গবেষণা করে। সেই গবেষণায় তাদের সাহায্য করেন আমেরিকা ও ইসরায়েলের বিজ্ঞানীরা।’কিউরিওসিটি’ রোভারের পাঠানো একটি ছবিতে দেখা গিয়েছিল, চাকতি আকারের এক সাদা গোলাকার বস্তু মঙ্গলগ্রহের মাটির ওপরে ঘুরে বেড়াচ্ছে। নাসা এখনও পর্যন্ত নিশ্চিত করে এই বস্তুটি সম্পর্কে স্পষ্ট করে কোনও ব্যাখ্যা দেয়নি। যদিও বিশেষজ্ঞরা জানিয়েছেন যে ‘কিউরিওসিটি’ রোভার এর আগেও এই একই বস্তুর ছবি একাধিকবার পাঠিয়েছে। যাঁরা ভিনগ্রহীদের অস্তিত্ব সম্পর্কে নিঃসন্ধিগ্ধ তাঁরা এই ছবি দেখে স্বভাবতই যারপরনাই উল্লসিত হয়ে উঠেছিলেন। অন্যদিকে যে সংশয়বাদীরা চাঁদে মানুষ নামা থেকে শুরু করে নাসা’র সমস্ত কার্যকলাপকেই একটি বৃহত্ চক্রান্তের অংশ হিসেবে মনে করেন তাঁরা এই ছবিটিকে ভুয়ো এবং চক্রান্ত বলেই ঘোষণা করে দিয়েছেন।

Share this News
error: Content is protected !!