মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

ভোটের আগে পুজোর লড়াই

নিজস্ব সংবাদদাতা : বাংলার জীবনে, সংস্কৃতিতে ও মননে দুর্গাপুজোর বিরাট গুরুত্ব। তাই বিজেপিকেও এখানে জায়গা খুঁজে নিতে হচ্ছে এবং প্রধানমন্ত্রী স্বয়ং সেই লড়াইয়ে অংশ নিচ্ছেন। এখানেও বিজেপির ট্রাম্প কার্ড নরেন্দ্র মোদি। মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় দুর্গাপুজোর উদ্বোধন শুরু করে দিয়েছেন। তিনি ভার্চুয়ালি ১০টি জেলার ৬৯টি পুজোর উদ্বোধনকর ফেলেছেন। আগামী ২ দিনে আরও পুজোর শুভসূচনা করবেন তিনি। এবার শোনা যাচ্ছে ,২২ অক্টোবর প্রধানমন্ত্রী বিজেপির মহিলা মোর্চা ও তাদের সাংস্কৃতিক শাখা ইজেডসিসি-র দুর্গাপুজোয় ভার্চুয়ালি অংশগ্রহণ করবেন। ২২ অক্টোবর হল ষষ্ঠী। সেইদিন প্রধানমন্ত্রী মোদি বিভিন্ন ভার্চুয়াল প্ল্যাটফর্মে বাংলার মানুষকে সম্বোধন করবেন। সম্বিত পাত্র চণ্ডীপাঠ করতে পারেন। তবে গোটা বিষয়টি এখন পরিকল্পনার পর্যায়ে আছে। গতবছরও বিজেপি বাংলার দুর্গাপুজোর প্যান্ডেল সার্কিটে ঢোকার চেষ্টা করেছিল। কিন্তু তেমন সফলতা পায়নি। ২টো বড় পুজোয় উদ্যোক্তাদের মধ্যে যারা বিজেপির নেতা ছিলেন, তারা পালের হাওয়া কেড়ে নিতে চেয়েছিলেন । বিজেপির অভিযোগ, তৃণমূল চাপের কৌশল কাজে লাগিয়েছিল। যদিও তৃণমূল এই অভিযোগ অস্বীকার করেছে। গতবারই সন্টলেকের বিজে ব্লকের একটি পুজোর উদ্বোধন করেছিলেন অমিত শাহ। এনিয়ে আয়োজক কমিটি দ্বিধাবিভক্ত হয়ে গেছিল। এখন দেখার, ২০২১- এর আগে পুজো উপলক্ষে কোনো চমক দিতে পারে কিনা গেরুয়া শিবির।

Share this News
error: Content is protected !!