জানুয়ারী 29, 2023

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিলেই কলকাতায় শুরু গণটিকাকরণ!


নিজস্ব সংবাদদাতা : মুখ্যমন্ত্রীর গ্রিন সিগন্যাল দিলেই কলকাতার বুকে শুরু হয়ে যাবে গণটিকাকরণ। প্রথম দফাতেই শহরের ৫০ লক্ষ মানুষ এই টিকা পাবেন। এমনটাই জানালেন কলকাতা পুরনিগমের প্রধান প্রশাসক তথা রাজ্যের পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম। বুধবার বিকেলে নাইসেডে কলকাতা পুরসভার মুখ্যপ্রশাসক ফিরহাদ হাকিমকে স্বাগত জানান ডিরেক্টর শান্তা দত্ত। এরপর ভিতরে গিয়ে তিনি যে করোনার টিকা নিতে রাজি, সেই সম্মতি পত্রে সই করেন। তারপরই আসল পর্ব। তাঁর উপরই পরীক্ষামূলকভাবে কোভ্যাক্সিন প্রয়োগ করে বৈজ্ঞানিক ট্রায়ালের সূচনা ঘটে নাইসেডে। দেশীয় ভ্যাকসিনের চূড়ান্ত পর্বের ট্রায়ালে অংশ নেওয়া কলকাতার ‘ফার্স্ট সিটিজেন’ পুরমন্ত্রী ফিরহাদ হাকিম টিকা নেওয়ার ২৪ ঘণ্টা পরে ভালই আছেন। বৃহস্পতিবার তিনি জানান,’পুরো ফিট আছি। এই ভ্যাকসিন ট্রায়াল শেষ হলেই মুখ্যমন্ত্রী নির্দেশ দিলেই শহরে প্রতিটি ওয়ার্ডে গণ টিকাকরণ শুরু করব। আমাদের তালিকা সম্পূর্ণ প্রস্তুত আছে।’ স্বাস্থ্য বিশারদদের দাবি, এই ধরনের ভ্যাকসিন ঠিক ভাবে কাজ করছে কী করছে না তা এত তাড়াতাড়ি বোঝাই যাবে না। খুব কম পক্ষে এক বছর সময় লাগবেই এটা বুঝতে যে কোভ্যাক্সিন মানবদেহে করোনার অ্যান্টিবডি ঠিক মতন তৈরি করতে সক্ষম হচ্ছে কী হচ্ছে না। যদি দেখা যায় এই সময়ের মধ্যে ওই ব্যক্তি কোভিডে আর আক্রান্ত হচ্ছেন না তাহলে ধরে নেওয়া হবে ভ্যাকসিন কাজ দিচ্ছে। কিন্তু যদি দেখা যায় টিকা নেওয়ার পরেও তাঁর শরীরে কোভিড হাবা দিচ্ছে তাহলে ধরে নিতে হবে টিকা কাজ দিচ্ছে না। ফিরহাদ হাকিমের ক্ষেত্রেও সেই একই নীতি কার্যকর হবে। তবে টিকা নেওয়ার প্রাথমিক কোনও বিরূপ প্রতিক্রিয়া তাঁর শরীরে এখনও দেখা দেয়নি এটা অবশ্যই ভালো খবর। পুরমন্ত্রী জানিয়েছেন, মূলত ৫০ বছরের উর্ধ্বে যারা রয়েছেন ও ৫০ বছরের নীচে যাদের কো-মোর্বিডটি রয়েছে তাঁদেরকেই বেছে নেওয়া হয়েছে প্রথম দফার কোভিড ভ্যাকসিন নেওয়ার জন্য।ইতিমধ্যেই এর জন্য শহরের ৩০ লক্ষ মানুষের নাম নথিভুক্ত হয়ে গিয়েছে। আরও ২০ লক্ষ মানুষের নাম নথিভুক্ত করা হবে বলেই ফিরহাদ হাকিম জানিয়েছেন।

Share this News
error: Content is protected !!