মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

‘মৃত্যুর পর আমার সমস্ত সৃষ্টি ধ্বংস করা হোক’, ফেসবুকে ইচ্ছাপত্র প্রকাশ কবীর সুমনের

বাংলা আধুনিক গানের অন্যতম পুরোধা, সংগীতকার কবীর সুমন । ইচ্ছাপত্র প্রকাশ করে তিনি জানিয়েছেন যে তাঁর মৃত্যুর পর যেন এতদিনকার যাবতীয় কাজ ধ্বংস করা হয়। এমনকী বাদ্যযন্ত্র, রেকর্ডিংও। স্বহস্তে লেখা চিঠি তিনি ফেসবুকে পোস্ট করেছেন। এই পোস্ট ঘিরে আপাতত তোলপাড় বঙ্গ সংস্কৃতি মহলে।

দুর্গাপুজোর আনন্দে সবে গা ভাসাতে শুরু করেছেন আমবাঙালি, ঠিক সেই সময়েই সোশ্যাল মিডিয়ায় এমন একটি পোস্ট নজর কাড়ল সকলেরই। সুমনের গানের সঙ্গে যাঁরা অল্পবিস্তর পরিচিত, তাঁরাও এই পোস্ট দেখে চমকেছেন। পোস্টে ঠিক কী লিখেছেন কবীর সুমন? লিখেছেন, ‘আমার মৃতদেহ যেন দান করা হয় চিকিৎসাবিজ্ঞানের কাজে। কোনও স্মরণসভা, শোকসভা, প্রার্থনাসভা যেন না হয়। আমার সমস্ত পাণ্ডুলিপি, গান, রচনা, স্বরলিপি, রেকর্ডিং, হার্ড ডিস্ক, পেনড্রাইভ, লেখার খাতা, প্রিন্ট আউট যেন কলকাতা পুরসভার গাড়ি ডেকে তাঁদের হাতে তুলে দেওয়া হয় সেগুলি ধ্বংস করার জন্য। আমার কোনও কিছু যেন আমার মৃত্যুর পর পড়ে না থাকে। আমার ব্যবহার করা সব যন্ত্র, বাজনা, সরঞ্জাম যেন ধ্বংস করা হয়। এর অন্যথা হবে আমার অপমান’। এও লিখেছেন যে সকলের অবগতির জন্য তাঁর ওই পোস্ট।

কিন্তু কেন আচমকা এই পোস্ট? সত্তর পেরনো কবীর সুমন এই মুহূর্তে বাংলা খেয়ালচর্চায় মনোনিবেশ করেছেন। আধুনিক গানে সম্পূর্ণ ভিন্ন ধারা বয়ে আনা রচয়িতার কথায়, সুরে তৈরি হচ্ছে সময়োপযোগী অসামান্য কিছু খেয়াল। ছাত্রছাত্রীদের নিয়ে নিয়মিত নতুন নতুন খেয়াল তৈরির ‘খেয়ালে’ মজেছেন তিনি। যে কোনও অনুষ্ঠানেই স্পষ্ট ঘোষণা করেন, বাকি জীবনটা তিনি বাংলা খেয়ালের জন্য কাজ করবেন, রেখে যাবেন নিজের সৃষ্টি। আর তার প্রবহমানতা ধরে রাখবেন ছাত্রছাত্রীরা – এই তাঁর ইচ্ছে। জীবনের অনেকটা অংশে বেশ কিছু বিতর্ক সঙ্গী কবীর সুমনের। ব্যক্তিগত অথবা রাজনৈতিক বিভিন্ন ক্ষেত্রে বহু সমালোচনার মুখেও পড়তে হয়েছে। ক্ষুরধার মেধা আর স্থিতপ্রজ্ঞ দৃষ্টিভঙ্গিতে অনায়াসে সামলেছেন সেসব। বাংলা খেয়াল নিয়েও সমস্ত সমালোচনাকে হেলায় তুচ্ছ করে চালিয়ে গিয়েছেন সাধনা।

Share this News
error: Content is protected !!