জানুয়ারী 30, 2023

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

ম্যানগ্রোভের জঙ্গলে দক্ষিণরায়ের দেখা


নিজস্ব সংবাদদাতা : তাপমাত্রার পারদ একটু একটু করে নামতে শুরু করেছে। বাড়ির পাখা ঠিক কতটা জোরে চলবে, তা নিয়ে নিশ্চয়ই পরিজনদের সঙ্গে আপনার এতক্ষণে তরজাও শুরু হয়ে গিয়েছে। অন্য বছর হলে এতক্ষণে ছোটখাটো বেড়াতে যাওয়ার পরিকল্পনাও নিশ্চয়ই করে ফেলতে পারতেন আপনি।এই পরিস্থিতিতেও যাঁরা শীতের মরশুমে সুন্দরবন পাড়ি দিয়েছিলেন তাঁদের জন্য বাড়তি পাওনা বাঘমামার দর্শন। কারণ, ম্যানগ্রোভের জঙ্গলে মরশুমে প্রথমবার দেখা মিলল বাঘের।রবিবার সুন্দরবনের জঙ্গলের চোরা গাজিখালিতে মরশুমের প্রথম বাঘ দেখতে পাওয়া যায়। জঙ্গলের ভিতরে ঘোরাফেরা করতেই মূলত দেখা যায় বাঘমামাকে। পর্যটকরাই প্রথমে বাঘটিকে দেখতে পান। সেভাবে পর্যটকের চাপ এবার সুন্দরবনে নেই। তবে অল্প সংখ্যক পর্যটক বাঘ দেখে বেশ খুশি হয়েছেন। অনেকেরই দাবি, করোনা পরিস্থিতিতে ঝুঁকি নিয়ে সুন্দরবনে বেড়াতে এসে কার্যত লাভই হল তাঁদের। ক্যানিংয়ের পর্যটন ব্যবসায়ী সুরজ দাস বলেন, “শীতের মরশুমে এই প্রথমবার বাঘ দেখা গেল। পুজোর মরশুমে পর্যটক এসেছিলেন ঠিকই। তবে সে সময় বাঘের দেখা পাওয়া যায়নি।”বাঙালি ভ্রমণপিপাসু। তাদের পায়ের তলায় সরষে। প্রায় প্রতি বছরই সবুজের মাঝে অক্সিজেনের খোঁজে পাড়ি দেন অনেকেই। বাক্সপ্যাঁটরা গুছিয়ে বেরিয়ে পড়েন অগুনতি পর্যটক। চলতি বছর করোনা পরিস্থিতির জন্য লকডাউন ছিল অনেকদিন। সেই সময় বাড়ি থেকে বেরোতে পারেননি কেউ। তার ফলে ব্যাপক ক্ষতি হয় পর্যটন ব্যবসায়। এরপর আনলক পর্যায়ের মাধ্যমে অর্থনীতিকে সচল করার চেষ্টা শুরু হয়। কম হলেও আনলক পরিস্থিতিতে সামান্য কিছু পর্যটকের মুখ দেখা যাচ্ছে। ব্যবসায় জোয়ার আসছে না ঠিকই। তবে লকডাউন পরিস্থিতির চেয়ে সামান্য আর্থিক উন্নতি হওয়ায় পর্যটন ব্যবসায়ীদের মুখে ফের হাসি ফুটেছে।

Share this News
error: Content is protected !!