মে 20, 2022

Disha Shakti News

New Hopes New Visions

সল্টলেকে বাড়ির ছাদে কঙ্কাল


নিজস্ব সংবাদদাতা : অনিল মাহেনসরিয়া নামক এক ব্যবসায়ী বিধাননগর পূর্ব থানায় অভিযোগ জানান যে তাঁর বড় ছেলে অর্জুন নিখোঁজ। পুলিসকে তিনি জানান, তাঁর সন্দেহ স্ত্রী গীতাই বড় ছেলেকে অপহরণ করে খুন করেছে। অনিলের বয়ানের ভিত্তিতে সল্টলেকের এজে ব্লকের ২২৬ নম্বর বাড়িতে তল্লাশি চালায় পুলিস। তল্লাশির সময়েই বাড়ির ছাদে মেলে এক পূর্ণ বয়স্ক মানুষের প্রায় কঙ্কাল হয়ে যাওয়া পচা গলা দেহ। কেন নিজের স্ত্রীর উপর এই গুরুতর অভিযোগ করছেন, পুলিশকে তা-ও জানিয়েছেন অনিল। পুলিশের কাছে বয়ানে অনিল জানিয়েছেন, দাম্পত্য কলহের জেরে সম্প্রতি তাঁরা আলাদা থাকতে শুরু করেছিলেন। বড় ছেলে ২৫ বছরের অর্জুন-সহ আর এক ছেলে বিদুর এবং মেয়ে বৈদেহীকে নিয়ে সল্টলেকের বাড়িতে থাকতেন গীতা। তিনি রাজারহাটের একটি আবাসনে একা থাকতেন। অনিলের দাবি, গত ২৯ অক্টোবর তিনি জানতে পারেন যে ছেলেমেয়েদের নিয়ে নিজের বাবার বাড়ি রাঁচীতে চলে গিয়েছেন গীতা। যদিও পরে খোঁজ নিলে জানা যায় যে বিদুর এবং বৈদেহী মায়ের সঙ্গে রাঁচীতে থাকলেও সেখানে অর্জুন নেই। অথচ তাঁর স্ত্রী ফোনে তাঁকে জানিয়েছিলেন, তাঁর সঙ্গেই বড় ছেলে রয়েছে। ওই ঘটনার পর থেকে স্ত্রীর উপর সন্দেহ হয় অনিলের। ছেলের খোঁজ শুরু করেন তিনি। তবে কোথাও অর্জুনের খোঁজ না পেয়ে অবশেষে পুলিশের কাছে অভিযোগ করেন।পুলিস সূত্রে খবর, এই ঘটনার পর থেকে গীতা-সহ পরিবারের বাকি সদস্যদের খোঁজ শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশের আর এক কর্তা বলেন, ”গীতা এবং বাকিদের জেরা না করা পর্যন্ত গোটা ঘটনা স্পষ্ট হবে না।”

Share this News
error: Content is protected !!